স্কুলে চিতাবাঘ, সব বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা

শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪ | ১১:২৮ পূর্বাহ্ণ

স্কুলে চিতাবাঘ, সব বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা
স্কুলে চিতাবাঘ, সব বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা
apps

ভারতের তামিলনাড়ুর তিরুপাথুরে শুক্রবার একটি বেসরকারি স্কুলে চিতাবাঘ ঢুকে পড়ে। এতে স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়। একজন সিনিয়র বন কর্মকর্তা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। যখন চিতাবাঘটির সন্ধান চলছে, তখন জেলা কালেক্টর আগামী তিন দিনের জন্য সেখানকার সমস্ত স্কুল বন্ধ ঘোষণা করেছেন। খবর এনডিটিভির।

তিরুপাথুর জেলা কালেক্টর কে থারপাগরাজ, পুলিশ সুপার অ্যালবার্ট জন এবং বন বিভাগের কর্মীরা জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে স্কুলে ছুটে যান। জেলা কালেক্টর জানান, একজন অভিভাবক যিনি বিকাল ৪টার দিকে তার সন্তানকে নিতে স্কুলে এসেছিলেন ক্যাম্পাসে চিতাবাঘটিকে লক্ষ্য করেন। সঙ্গে সঙ্গে তিনি বিষয়টি কর্তৃপক্ষকে জানান। পুলিশ ও বন বিভাগের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে শিশুদের নিরাপদে বাড়ি পৌঁছে দেয়।

তিনি আরও বলেন, প্রাথমিকভাবে, জালের সাহায্যে প্রাণীটিকে ধরার পরিকল্পনা করা হয়েছিল। কিন্তু ক্যাম্পাসে একটি ঝোপের নিচে চিতাবাঘটি নজরে পড়ার পরে ওই পরিকল্পনাটি বাদ দেওয়া হয়।  এদিকে, চিতাবাঘের আক্রমণে একজন আহত হয়েছেন এবং তাকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বন কর্মকর্তা।

পরে সংবাদ সম্মেলনে জেলা কালেক্টর আরও বলেন, বন বিভাগের কর্মকর্তা ও কর্মীরা চিতাবাঘটিকে ধরার জন্য সমস্ত প্রচেষ্টা করেন। তারা চিতাবাঘের গতিবিধি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছেন।  যখনই এটিকে ধরার চেষ্টা করা হয় তখনই প্রাণীটি তার অবস্থান পরিবর্তন করতে থাকে।

শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে জেলা প্রশাসন সমস্ত স্কুলকে তিন দিনের ছুটি ঘোষণা করতে বলেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এই সময়ের মধ্যে স্কুল ক্যাম্পাসে কোনও ধরনের কার্যক্রম চলবে না।

চিতাবাঘের আক্রমণে আক্রান্ত ব্যক্তির অবস্থা সম্পর্কে জানতে চাইলে কালেক্টর বলেন, তাকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে এবং তার জীবন শঙ্কামুক্ত।  জ্যেষ্ঠ বন কর্মকর্তা জানান, প্রাণীটিকে ধরার জন্য সব ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

Development by: webnewsdesign.com